চারিদিকে ভালো করে খুজুন এবং আত্মবিশ্বাস সহ এগিয়ে যান

0
124

চারিদিকে ভালোভাবে খুঁজুন এবং আত্মবিশ্বাস সহ এগিয়ে যান। তুমি বই লিখতে চাও সেটা অবশ্যই ভালো কথা। কিন্তু তুমি কি রকম বই লিখতে চাও সেটা আগে নির্ধারণ করতে হবে। সে বিষয়ে তোমার যথেষ্ট পরিষ্কার ধারণা আছে কিনা সেটা বের করতে হবে?

যদি আমাদের সামনে এখন কোন সমস্যা না থাকতো তাহলে আমি তোমাকে ওই ফোনটা কিনে দিতাম। কিন্তু আমাদেরকে এখন ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তা করতে হবে। যে কোন মুহূর্তে পরিস্থিতি পরিবর্তন হতে পারে।

তাই ভবিষ্যতের জন্য টাকা সংরক্ষণ করতে হবে। যদিও আমরা সংরক্ষণ করতে পারতেছি না। বিপদে পড়লে আমি অনেকের কাছ থেকে ধার নিতে পারব। তাই আমি তাদেরকে সংরক্ষণ করে রেখেছি। এখন তাদের থেকে ধার নিয়ে তোমাকে মোবাইল কিনে দেওয়া উচিত হবে না।

তা না হলে হয়তো বা আমি এমনটাই করতাম। তুমি যে এই ছবি নিজে তুলেছো তা আমি বুঝতে পারছি। যখন তুমি এই ছবি তোমার মোবাইলে ধারণ করো তখন কি কেউ তোমাকে দেখেনি? আর তুমি এই ঘটনা দেখে কতটা শিহরিত হয়েছে?

সামনের ড্রেস সুন্দর হয়েছে। আমি ওকে বলেছি যে এটা তোমার চাচী কিনে দিয়েছে। আমার আম্মু এবং ভাবী ব্যাপারটা জানে। তারা এটাও জানে যে আমরা কোথা থেকে কিনেছি এবং পূর্ণ ঘটনা বিস্তারিত আমি তাদের বলেছি। ওই ড্রেসটা পরে গতকাল ও দাদার বাসায় গিয়েছিল।

আমি কোনভাবেই ব্যস্ত না। বাসার পিছনে বসে আছি। তোমার মেসেজ দেখে আমি ভেবেছিলাম তুমি ব্যস্ত। ওই পোশাকটা ওকে অনেক মানিয়েছে। অনেক চেষ্টা করেছি কিন্তু ও ছবি ধারণ করতে দেয়নি। তা না হলে আমি তোমাকে দিতাম।

তখন আমার কথা মনে পড়ল। এ কথাটি দ্বারা তুমি কি বুঝাতে চেয়েছ তা আমি বুঝতে পারিনি? এ ব্যাপারে আমি তোমার অভিজ্ঞতা জানতে চেয়েছি। তুমি তা কৌশলে এড়িয়ে চলার চেষ্টা করেছ। তাই আমি চাই তুমি পরবর্তী মেসেজে তা পরিষ্কার ভাবে উপস্থাপন করবে।

আমার মা এবং ভাবি তারা দুজনেই পোশাকটা অনেক পছন্দ করেছে। আমাদের দেখা হওয়া এবং ঘুরে বেড়ানোর ব্যাপারে তাদের কোন সমস্যা নেই। তাই তারা এ বিষয়ে অতিরিক্ত কোনো মন্তব্য করেনি।

আমি মোটামুটি ভালোই আছি। আমার দিনগুলি অনেক ভাল যাচ্ছে। আমার ঢাকা যাওয়া নিয়ে এক রকম অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে। গুরু তার জন্য এবং আমার জন্য দুটি টিকিট রেখেছে। কিন্তু সমস্যা হলো তিনি এখন ঢাকা যেতে পারবেন না।

তবে আমি খুব দ্রুতই যাওয়ার চেষ্টা করতেছি। যখন তোমার সঙ্গে আমার রাস্তায় দেখা হয়। তখন তুমি আমাকে দেখে মুচকি হাসি দাও কেন? তাই বলে ভেবনা আমি এটা দেখে তোমার প্রেমে পড়ে যাব। এমনটা হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই। তাই অযথা সময় নষ্ট করে লাভ নেই।

এই চাকরির ব্যাপারটা একটু ভিন্ন রকম। অফিস থেকে বলেছে আগে কিছুদিন ফিল্ড ট্রেনিং করতে। তারপর হেড অফিস গিয়ে নরমাল ট্রেনিং করতে হবে। তাই আগে তিনি নীলফামারীতে ফিল্ড ট্রেনিং করতে যাবেন। তারপর যখন ডাক পড়বে তখন ঢাকা যাবেন।

আমি তো আমার জায়গা থেকে এ প্রশ্নের উত্তর দিতে পারব না। আগে তোমাকে বলতে হবে তুমি কেন এমনটা করে থাকো? অনিক ভাই আজকে রাত্রে টিকিট কাউন্টারে যাবে। তারপর আমি বুঝতে পারবো আমি কবে যেতে পারবো। এটা পুরোটাই নির্ভর করবে টিকিট পাওয়া এবং না পাওয়ার উপর।

ওর সাথে আমার সাধারণ কথাবার্তা হয়েছে। বিশেষ কোন কথা বলার মত কোন পরিবেশ হয়নি। তাকে নিয়ে আলোচনায় বসার মতো কোনো পরিবেশ এখনও তৈরি হয়নি। এবং এরকম কিছু সৃষ্টি হবে বলে আমি মনে করতেছি না। কারণ চাচারা কালকেই চলে যাবে।

কালকে আমাদের ফ্যামিলি থেকে অনেকেই দাওয়াত খেতে যাবে। খুব সম্ভবত একটা মাইক্রোতে করে যাবে। আমার চাচির ছোট বোনের বিয়ে খেতে। আমার আব্বু আমাকে বলেছিল তাদের সঙ্গে যেতে। কিন্তু আমি বলেছি আমি আর কোথাও যাবো না।